আবরার হত্যার ঘটনা নিয়ে বিশ্বগণমাধ্যম তোলপাড়

ঢাকা: বুয়েটের শিক্ষার্থী আবরার ফাহাদ হ’ত্যাকাণ্ড দেশজুড়ে ব্যাপক প্রতিক্রিয়া সৃষ্টি করেছে। দেশের বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান থেকে শুরু করে প্রায় বিভিন্ন শ্রেণি পেশার মানুষ এই হ’ত্যাকাণ্ডের সুষ্ঠু বিচারের দাবিতে রাজপথে এবং সোস্যাল মিডিয়ায় ঝড় তুলছে। দেশের সকল গণমাধ্যম এই ঘটনার চলমান প্রতিটি ইস্যু নিয়ে লাগাতার সংবাদ প্রকাশ করে যাচ্ছে।

তবে শুধু বাংলাদেশ নয় আন্তর্জাতিক পর্যায়ে পরিচিত শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের ( বুয়েটের এই শিক্ষার্থী হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় সরব হয়ে উঠেছে বিশ্ব মিডিয়াও। আবরার ফাহাদ হ’ত্যাকাণ্ডের নির্মম বিষয়টি এরইমধ্যে বেশ কয়েকটি আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমে গুরুত্বের সঙ্গে স্থান দেয়া হয়েছে।

বাংলাদেশের অন্যতম শীর্ষ শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বুয়েটে এই ব’র্বর হ’ত্যাকাণ্ডের বিষয়টি নিয়ে প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে এএফপি, গালফ নিউজ, ভয়েস অব আমেরিকা, আল-জাজিরাসহ আরও কিছু গণমাধ্যম। দুবাইভিত্তিক গণমাধ্যম গালফ নিউজ ফাহাদ হ’ত্যা নিয়ে একটি প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে যার শিরোনাম- বাংলাদেশ : শিক্ষার্থী হত্যায় বিশ্ববিদ্যালয়ে বিক্ষোভের শুরু। এই প্রতিবেদনে লেখা হয়, এক আন্ডারগ্র্যাজুয়েটকে পিটিয়ে হত্যার বিচারের দাবিতে সোমবার আন্দোলনে নামে শিক্ষার্থীরা এবং প্রধান কয়েকটি সড়ক বন্ধ করে দেয়।

ফরাসি সংবাদমাধ্যম এএফপির বরাত দিয়ে ওই প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়, ভারতের সঙ্গে পানি চুক্তি নিয়ে সরকারের সমালোচনার কারণে ক্ষমতাসীন দলের কর্মীরা আবরার ফাহাদকে হত্যা করে। ঢাকার ডেপুটি পুলিশ কমিশনার মুনতাসিরুল ইসলাম বলেন, ফাহাদকে পিটিয়ে হত্যা করা হয়েছে এবং ক্ষমতাসীন দলের কর্মীদের জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করা হয়েছে।

এছাড়া যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক গণমাধ্যম ভয়েস অব আমেরিকা আবরার ফাহাদ হ’ত্যাকাণ্ড নিয়ে প্রকাশিত প্রতিবেদনের শিরোনাম দেয়- বাংলাদেশে শিক্ষার্থী হ’ত্যায় বিশ্ববিদ্যালয়ে বিক্ষোভ। এই প্রতিবেদনে বলা হয়, ভারতের সঙ্গে পানি বণ্টন নিয়ে সরকারের সমালোচনা করায় ক্ষমতাসীন দলের কর্মীরা এক শিক্ষার্থীকে পিটিয়ে হত্যা করেছে বলে অভিযোগ উঠেছে।

প্রতিবেদনে আরও বলা হয়, তার মৃতদেহ বিশ্ববিদ্যালয়ে হলের বারান্দায় পাওয়া যায়। অন্য শিক্ষার্থীদের দেয়া তথ্যানুযায়ী, ক্ষমতাসীন আওয়ামীলীগের ছাত্র শাখার সদস্যরা ফাহাদকে জিজ্ঞাসাবাদের পর পিটিয়ে মারে।

অপরদিকে, বার্তা সংস্থা নিউজ ১৮ এই হ’ত্যাকাণ্ডের ব্যাপারে সংবাদ প্রকাশের পাশাপাশি চলমান ছাত্র বিক্ষোভের ব্যাপারেও খবএর প্রকাশ করেছে। এছাড়া অন্যান্য আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমেও আবরার ফাহাদ হ’ত্যাকাণ্ডের বিষয়টি গুরুত্বসহকারে তুলে ধরা হয়েছে। প্রতিটি প্রতিবেদনে শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভরত আন্দোলনের ছবিও প্রকাশ করা হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *