টাঙ্গাইলে করোনা আক্রান্ত সন্দেহে প্রবাসীর সঙ্গে সব যোগাযোগ বন্ধ

টাঙ্গাইল: সিঙ্গাপুর ফেরত এক প্রবাসী করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত সন্দেহে আতঙ্ক বিরাজ করছে স্থানীয়দের মধ্যে। টাঙ্গাইলের বাসাইল উপজেলার দেউলী এলাকার এ ঘটনায় সন্দেহজনক ওই প্রবাসীকে উপজেলার স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স থেকে টাঙ্গাইল জেনারেল হাসপাতালে পাঠানো হয়। পরে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ তাকে ঢাকায় রেফার করেছে।

এদিকে, প্রবাসী আব্বাস আলী জানান, গত ১৩ ফেব্রুয়ারি রাতে সিঙ্গাপুর থেকে বাংলাদেশ ইমিগ্রেশনে থার্মাল মেশিন দিয়ে যথাযথ পরীক্ষা নিরীক্ষা করে নিজ বাড়িতে আসার পরদিন ঘুম থেকে দেরি করে উঠে বাড়ির পাশে বাজারে যান।

এ সময় স্থানীয়রা সন্দেহ করেন, তার করোনা ভাইরাস আছে বলেই সিঙ্গাপুর থেকে তাকে ফেরত পাঠানো হয়েছে। ওই প্রবাসী বার বার স্থানীয়দের বুঝিয়েও ব্যর্থ হন। এক পর্যায়ে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স থেকে রোববার (১৬ ফেব্রুয়ারি) সকালে তার বাড়িতে লোক এসে শারীরিক পরীক্ষা নিরীক্ষার জন্য টাঙ্গাইল জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে যান। এমনকি করোনা ভাইরাস আক্রান্ত প্রবাসীর সাথে এলাকাবাসী কেউ স্বাভাবিক মেলা মেশা করছেন না। এতে সমস্যার মধ্যে পড়তে হয়েছে ওই প্রবাসী এবং তার স্বজনদের।

বিষয়টি নিয়ে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের পরিসংখ্যান অফিসার এসএম জামাল জানান, স্থানীয়দের মাঝে আতঙ্ক বিরাজ করায় সন্দেহজনকভাবে তাকে হাসপাতালে পরীক্ষা নিরীক্ষার জন্য আনা হয়েছে।

অন্যদিকে টাঙ্গাইল জেনারেল হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার শফিকুল ইসলাম সজিব জানান, প্রবাসী আব্বাসকে দেখে তেমন কিছু বোঝা যাচ্ছে না। কর্তৃপক্ষের নির্দেশে টাঙ্গাইল জেনারেল হাসপাতালে একটি আইসোলেশন বিভাগ খোলা হলেও এখানে চিকিৎসকদের সেবা প্রদানের সুযোগ সুবিধা নেই। যে কারণে তাকে ঢাকায় রেফার করা হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *