বিয়ের দুই সপ্তাহ পর জানা গেল স্ত্রী ছেলে

ঢাকা: বেশ আয়োজন করে ধর্মীয় রীতি মেনে বিয়ে করেন মসজিদের ইমাম। তবে বিয়ের দুই সপ্তাহ পর ওই ইমাম জানতে পারেন যাকে বিয়ে করেছেন তিনি মেয়ে নয়, আসলে ছেলে। আর সম্প্রতি এ ঘটনাটি ঘটেছে উগান্ডার এক গ্রামে। মোহাম্মদ মুতুম্বা নামের ওই ইমাম দেশটির কিয়োঙ্গা জেলার কিয়াম্পিসি গ্রামের বাসিন্দা। খবর ডেইলি মনিটর।

তিনি সব্বুল্লাহ নাবুকেরা নামে মেয়েকে বিয়ে করেন। বিয়ের পর একসঙ্গেই ছিলেন তারা। কিন্তু মুতুম্বার স্ত্রী বিয়ের পরই জানান তার ঋতুস্রাব চলছে। এজন্য তিনি তার স্বামীকে ঘনিষ্ঠ হতে দেননি।

তবে মুতুম্বার এক প্রতিবেশী অভিযোগ করে তাকে বলেন, তার স্ত্রী দেয়াল টপকে তাদের টেলিভিশন সেট এবং কাপড় চুরি করেছে। এরপর ওই প্রতিবেশী থানায় অভিযোগ করেন। কিয়োঙ্গা জেলার ক্রিমিনাল তদন্ত কর্মকর্তা ইসাক মুগেরা বলেন, ওই ইমামের স্ত্রী যখন থানায় আসে তার পরনে হিজাব ছিল।

এ বিষয়ে ইসাক মুগেরা আরো জানান, এরপর জেলে ঢোকানোর আগে যখন ইমামের স্ত্রীকে নারী পুলিশ সার্চ করছিল তখন তারা আশ্চর্য হয়ে যান। ওই নারী পুলিশ আবিষ্কার করেন, ইমামের ওই স্ত্রী বক্ষ বন্ধনীতে কাপড় পেঁচিয়ে রেখেছিল যাতে বাইরে থেকে দেখতে নারীর স্তনের মতো দেখায়।

আরো সার্চ করা হলে পুলিশরা পুরোপুরি বুঝতে পারে ইমামের ওই স্ত্রী আসলে একজন ছেলে। প্রতারণা করতেই সে এমন কাজ করেছে। এদিকে এই সংবাদ ওই ইমামকে জানালে তিনি হতবাক হয়ে যান।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *