মোহাম্মদ আমিরের বিধ্বংসী বোলিংয়ে চরম বিপর্যয়ে রাজশাহী

ঢাকা: মোহাম্মদ আমিমের পেস আক্রমণে দীশেহারা রাজশাহী রয়েলস। ফাইনাল নিশ্চিত করার ম্যাচে ১৫৯ রানের সহজ টার্গেট তাড়া করতে নেমে মাত্র ৭.৫ ওভারে ৩৩ রানে প্রথম সারির ৬ ব্যাটসম্যানের উইকেট হারিয়ে চরম বিপর্যয়ে আন্দ্রে রাসেলের নেতৃত্বাধীন দলটি।

ইনিংসের শুরুতেই রাজশাহী শিবিরে একে একে তিনটি আঘাত হানেন খুলনার পাকিস্তান সেরা পেসার মোহাম্মদ আমির। তার গতির বলে ইনিংসের তৃতীয় বলেই স্ট্যাম্প ভেঙে যায় রাজশাহীর ওপেনার লিটন কুমার দাসের।

দলীয় ২২ রানে আমিরের বলে মুশফিকের হাতে ক্যাচ তুলে দিয়ে ফেনের অন্য ওপেনার আফিফ হোসেন। রানের খাতা খুলার আগেই আমিরের বলে শামসুর রহমান শুভর হাতে ক্যাচ তুলে দিয়ে ফেরেন অলক কাপালি।

আমিরের পর রাজশাহী শিবিরে আঘাত হানেন রবি ফ্রাঙ্কলিঙ্ক। তার বলে রাইলি রুশোর দুর্দান্ত ক্যাচে পরিনত হয়ে সাজঘরে ফেরেন রাজশাহীর ইংলিশ ব্যাটসম্যান রবি বোপারা। দলের এমন কঠিন বিপর্যয়ের দিনে বাড়তি দায়িত্বশীলতার পরিচয় দিতে পারেননি অধিনায়ক আন্দ্রে রাসেল।

ইনিংসের ষষ্ঠ এবং আমির নিজের ব্যক্তিগত চতুর্থ ও শেষ ওভারের পঞ্চম বলে আন্দ্রে রাসেলকে ক্যাচ তুলতে বাধ্য করেন। ঠিক পরের বলে ক্যাচ তুলে দেন নতুন ব্যাটসম্যান ফরহাদ রেজা। কিন্তু খুলনার তরুণ বোলার শহিদুল ইসলাম ক্যাচটি তালুবন্দি করতে পারেননি।

সোমবার সন্ধ্যায় মিরপুর শেরেবাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে ব্যাটিংয়ে নেমে নাজমুল হোসেন শান্তর ফিফটিতে ভর করে ৩ উইকেটে ১৫৮ রান সংগ্রহ করে খুলনা টাইগার্স। দলের হয়ে ৫৭ বলে ৭টি চার ও ৪টি ছক্কায় সর্বোচ্চ ৭৮ রান করেন শান্ত। আগের ম্যাচে সেঞ্চুরি করেছিলেন খুলনার এ তরুণ ওপেনার।

সংক্ষিপ্ত স্কোর: খুলনা টাইগার্স: ২০ ওভারে ১৫৮/৩ (শান্ত ৭৮*, শামসু ৩২, মুশফিক ২১, নজবিুল্লাহ ১২)।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *